সত্যিকার ভালোবাসা-১

সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর, আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া ইবাদাতের যোগ্য কেউ নেই এবং মুহাম্মাদ (সঃ) তাঁর বান্দাহ ও রসূল। আল্লাহ তাঁর উপর শান্তি বর্ষণ করুন, তাঁর স্মরণকে মহিমান্বিত করুন। তাঁর সাহাবা ও পরিবার- পরিজনের উপর অনুরূপভাবে শান্তি ও রহমত বর্ষণ করুন।

আমাদের আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু হচ্ছে অন্তরের একটি বড় কাজ, যেটা অন্য সব কাজের বুনিয়াদ হিসেবে পরিগণিত- এটি হচ্ছে আল্লাহর ভালোবাসা। যদি ভালোবাসা, ভয় ও আশার মধ্যে সম্পর্ককে একটি পাখির সাথে তুলনা করা হয়, তবে ভালোবাসা হবে পাখিটির মাথা এবং ভয় ও আশা হবে তার দুটি ডানা।

ভালোবাসা, ভয় ও আশা- এই তিনটি জিনিসের সমন্বয়েই বান্দা আল্লাহ্‌র দিকে অগ্রসর হয়।

ভালোবাসা হচ্ছে সেই জিনিস যার জন্য মানুষ প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হয়, এর ফলাফল জানার ইচ্ছা পোষণ করে এবং তা অর্জনে ব্যাকুল হয়ে ওঠে। অন্তরের জন্য তা সংস্থান, আত্মার জন্য খাদ্য; মানুষের জীবনযাত্রায় আনন্দের খোরাক, মনের আলোকসজ্জা; জীবনের প্রধানতম উদ্দেশ্য ও অস্তিত্বের নির্যাস।

আল্লাহর ভালোবাসা হচ্ছে জীবন, তা থেকে বঞ্চিত হওয়া মানে শোচনীয় মৃত্যু। এটি সেই আলো যা ছাড়া কাউকে অন্ধকারের সমুদ্রে ভেসে বেড়াতে হয়; সেই মহৌষধ যা ছাড়া অন্তর অসংখ্য রোগে আক্রান্ত হয়; সেই আনন্দ যার অভাবে কেউ অন্তহীন দুঃখে- কষ্টে নিপতিত হয়; এটি বিশ্বাস ও কাজের সেই নির্যাস যার অনুপস্থিতিতে মানুষ আত্মাহীন দেহে পরিণত হয়।

এটি সেই মাধ্যম যা ছাড়া কোনো মানুষ কখনও তার গন্তব্যে পৌঁছতে পারবে না কিংবা জান্নাতে তার অবস্থানও অর্জন করতে পারবে না।

এটি সেই মাধ্যম যার দ্বারা মানুষ তার প্রিয়জনের সান্নিধ্যে পৌঁছে (তিনি হচ্ছেন আল্লাহ)। আমি আল্লাহর নামে হলফ করে বলতে পারি, যে মানুষেরা ইহকাল ও পরকাল দুই জীবনেই এই মর্যাদা লাভ করতে পেরেছে, কেবল তারাই আনন্দ ও সুখ লাভে সক্ষম হয়েছে।

আমরা আলোচনা করছি আল্লাহর প্রতি তাঁর বান্দার ভালোবাসা সম্পর্কে, যে ভালোবাসার মধ্যে রয়েছে অসীম অনুগ্রহ, যা কেবল আল্লাহর গুণাবলি সম্পর্কে ওয়াকিফহাল মানুষই অনুধাবন ও তার যথাযথ মূল্যায়ন করতে পারে।

(চলবে ইনশাআল্লাহ…)

About মুহাইমিনুর রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Solve : *
26 ⁄ 13 =